29 June
A thief (dressed in black and eye-masked) pops up from behind a laptop's screen and hides the real URL by planting a fake one on it, clumsily written on a piece of cardboard as a visual metaphore for the phishing technique. Then, he "kindly" invites the user to fill in his/her bank account's password.

আপনার ব্যাংক ACCOUNT যেভাবে হ্যাকারদের হাত থেকে সুরক্ষিত রাখবেন

বর্তমানে অনেক ব্যাংক অনলাইন ব্যাংকিংয়ের সুবিধা দিচ্ছে। এবং অনলাইন ব্যাংকিংয়ে ব্যাংকগুলোর নিরাপত্তা ব্যবস্থাও যথেষ্ট উন্নত। কিন্তু হ্যাকাররাও দমবার পাত্র নয়। নানা কৌশলে ব্যবহারকারীর কাছ থেকে নাম, অ্যাকাউন্ট নম্বর, অ্যাকাউন্ট বিস্তারিত, ক্রেডিট কার্ডের নম্বর, মেয়াদ, পিন, পাসওয়ার্ড সহ অন্যান্য স্পর্শকাতর আর্থিক তথ্য হাতিয়ে নিতে নানা কৌশলে সদা তৎপর থাকে। সুতরাং হঠাৎ একদিন লক্ষ্য করলেন যে অ্যাকাউন্টে জমা টাকার হিসাবে গরমিল। ব্যাংকে গিয়ে জানলেন সব লেনদেন বৈধভাবেই হয়েছে। অথচ মোটা অঙ্কের টাকা বেরিয়ে গেছে আপনার অজান্তে। অর্থাৎ অনলাইন প্রতারকের পাল্লায় পড়ে গেছেন আপনি। এমনটা যাতে না ঘটে, সেজন্য খুব সচেতন থাকতে হবে আপনাকে। সম্প্রতি ভারতীয় একটি সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুসারে জেনে নিন, যেসব উপায়ে আপনার ব্যাংক অ্যাকাউন্ট দখল নিতে পারে হ্যাকাররা।

* লিংক ম্যানিপুলেশন: এই পদ্ধতিতে আপনার ইমেইলের সঙ্গে নানা লিংক জুড়ে দেয় প্রতারকরা। যার ফলে আপনি অসচেতনভাবে সেখানে ক্লিক করলেই আক্রমণকারীদের ডেটাবেসে ঢুকে পড়েন এবং প্রতারিত হতে পারেন।

* ফিল্টার ইভাশন: যাতে অনলাইন ব্যাংকিং সিস্টেম সঠিকভাবে ফিল্টার করতে না পারেন তার জন্য প্রতারকরা লেখার বদলে ছবি ব্যবহার করে নানা ফাঁদ পাতে।

* ফিশিং অ্যাটাক: আসলের মতো দেখতে নকল ওয়েব পেজে আপনার ব্যাংক সংক্রান্ত বিষয় আপডেট করার জন্য লিংক জুড়ে দেওয়া হয়। সেখানে ক্লিক করলেই আক্রমণকারীর কবলে পড়ে যাবেন।

* ম্যালওয়ার অ্যাটাক: আক্রমণকারীরা অনেকসময় অ্যাটাচমেন্টের সঙ্গে এই জাতীয় ভাইরাস পাঠিয়ে অ্যাকাউন্ট ট্র্যাপ করতে পারে।

* ক্ল্যাম্পি: এই নামের ভাইরাসের সাহায্যে ব্যাংক ও ক্রেডিট কার্ড সংক্রান্ত কোম্পানির ওয়েবসাইটে আক্রমণ। এর আগে গাম্বলার, নাইন বল জাতীয় ই-ভাইরাস বিশ্বকে ভুগিয়েছে। ক্ল্যাম্পি ভাইরাস ইন্টারনেটের মাধ্যমে দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে কম্পিউটারে। সেই কম্পিউটারে কোনো ব্যাংব বা ওয়েবসাইট ক্রেডিট কার্ড কোম্পানির ওয়েবসাইট খুললে ক্ল্যাম্পি তার ওপর নজর রাখে। আর আপনার আইডি, পাসওয়ার্ড ও তথ্য চুরি করে।

সুতরাং অনলাইন ব্যাংকিংয়ের ক্ষেত্রে নিচের নিয়মগুলো মেনে চললে নিরাপত্তা সুনিশ্চিত হবে।

* আপনার ইমেইলে আসা কোনো লিংকে ক্লিক করবেন না। এটা সর্বদা মনে রাখবেন, কোনো ব্যাংক অনলাইনে আপনার ব্যাংক অ্যাকাউন্টের আপডেট জানতে চায় না।

* অচেনা ব্যক্তিকে ব্যাংক অ্যাকাউন্ট ডিটেল দেবেন না।

* অ্যাকাউন্ট নম্বর বা পাসওয়ার্ড কোথাও লিখে রাখবেন না। মনে রাখার চেষ্টা করুন।

* ইন্টারনেট ব্রাউজার সব সময়ে ফিশিং ফিল্টারের মাধ্যমে ফিল্টার করুন।

* নিশ্চিত না হয়ে ওয়েবসাইটের কোনো ছবিতে ক্লিক করবেন না।

* ব্যাংক তথ্য দেওয়ার সময় সতর্ক থাকুন। ভাবুন, জরুরি বিষয়ে কিছু বলার থাকলে ব্যাংকে ডেকে না পাঠিয়ে মেইল করল কেন?

* অনলাইন লেনদেনের আগে ও পরে সমস্ত তথ্য মুছে ফেলুন।

* সব সময়ে ভার্চুয়াল কিবোর্ড ব্যবহার করুন।

* সাইবার ক্যাফেতে অনলাইন ব্যাংকের কাজ না করার চেষ্টা করুন।

* অনলাইন ব্যাংকিং শেষে দ্রুত লগ-আউট করুন।

* নিয়মিতভাবে পিন ও পাসওয়ার্ড পরিবর্তন করুন।

* আপনার অনলাইন ব্যাংকিং সুবিধা ছেড়ে চলে যাবেন না যতক্ষণ না আপনি লগ আউট না করছেন।

* ইন্টারনেট ব্রাউজারে নাম ও পাসওয়ার্ড জমা করবেন না।

Comments

Latest Blog Post

excel-13
October 31, 2017

Good News, we are organizing one day free workshop of Read More

Dewan ICT risit
August 1, 2017

স্কুলজীবন শেষ করেই কত টাকা বেতনের চাকরি প্রত্যাশা করতে পারেন। Read More

host-learningattachment
July 2, 2017

বাংলাদেশ কারিগরী শিক্ষাবোর্ড কতৃক অনুমোদিত দেওয়ান আইসিটি খুব শীঘ্রই শুরু Read More